প্রধান খবর

থাই উপকূলে বাংলাদেশি জাহাজডুবি, ১১ নাবিক নিখোঁজ

vdfbfnhহটনিউজ ডেস্ক: থাইল্যান্ডের সমুদ্র ‍উপকূলে এমভি হোপ নামে বাংলাদেশি একটি মালবাহী জাহাজডুবির ঘটনায় ১১ জন নাবিক নিখোঁজ রয়েছেন, এছাড়া ছয়জনকে উদ্ধার করা হয়েছে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে সাগর উত্তাল থাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। স্থানীয় সময় ভোর ৩টা ৫৭মিনিটের দিকে এমভি হোপ থেকে পাঠানো একটি এসওএস বার্তা অস্ট্রেলিয়ার রেসকিউ কোঅর্ডিনেশন (আরসিসি) সেন্টারে পাঠানো হয়। পরে তারা বিষয়টি ব্যাংককে জানায়।

ভারতের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানায়, থাইল্যান্ডের দক্ষিণে ফুকেট দ্বীপ থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে এই ঘটনা ঘটে। কার্গো জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দরের দিকে আসছিল।

এ বিষয়ে থাইল্যান্ডের নৌবাহিনীর ক্যাপ্টেন থাম্মাবুত মারলাইসুকারিন বলেন, ছয়জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে লাইফবোটে থাকা ১০ জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

তাদের উদ্ধারে নৌবাহিনীর হেলিকপ্টার আরো অভিযান শুরু করবে বলে তিনি ‍জানান।

এদিকে, ফুকেটনিউজ অনলাইনে জানিয়েছে, জাহাজটি সমুদ্রে সম্পূর্ণ নিমজ্জিত হয়নি। এটি পানির ওপরে কাত হয়ে ভাসছে।

বৈরী আবহাওয়ার কবলে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে উল্লেখ করে তিনি জানান, এ মুহূর্তে আন্দামানের সমুদ্র উপকূলে পাঁচ মিটার উচ্চতার ঢেউ রয়েছে।

জাহাজটি ঠিক কি কারণে ডুবে গেছে সে বিষয়ে পরিষ্কারভাবে কিছু জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে বৈরী আবহাওয়ার কারণে উত্তাল সাগর ও বিপরীত দিক থেকে আসা তীব্র বাতাসের কবলে পড়ে জাহাজটি ডুবে যায়।

২৩ বছর পুরনো ৯৭ মিটার দীর্ঘ এবং পাঁচ হাজার ৫৫০ টন ওজনের এমভি হোপ জাহাজটি মালয়েশিয়ার মালাক্কা দ্বীপ থেকে বাংলাদেশে আসার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে। সাধারণভাবে জাহাজটিতে ৩২ ক্র থাকার কথা থাকলেও দুর্ঘটনার সময় ১৭ জন ছিল।

দুর্ঘটনার পর বাক্সমুন ‍নামে জার্মান কন্টেইনারবাহী একটি জাহাজ পাঁচজন নাবিককে উদ্ধার করে। অক্ষত ওই নাবিকদের জাহাজটির মাধ্যমে বাংলাদেশে নিয়ে আসা হচ্ছে বলে ‍জানা গেছে।

এছাড়া থাই নৌবাহিনীর উদ্ধার করা আবু বকর সিদ্দিক নামে (৪০) এক বাংলাদেশিকে ভাশিরা ফুকেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি মাথায় এবং বাঁ হাতে আঘাত পেয়েছেন।