শিক্ষাঙ্গন

আহত বুয়েট ছাত্র দীপের মৃত্যু

Dip-0120130702113444নিজস্ব প্রতিবেদক: হেফাজত কর্মীদের হামলায় আহত বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আরিফ রায়হান দীপ মারা গেছেন। মঙ্গলবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।

রেজিস্ট্রার ভবনের সামনে আরিফের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুয়েটের মেকানিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন দীপ। কবি নজরুল ইসলাম হলের ২২৪ নম্বর কক্ষের আবাসিক ছাত্র। আরিফ রায়হান দীপ বুয়েট ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।
জানা যায়,৯ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আবাসিক হলের নিজকক্ষে দুর্বৃত্তের চাপাতির কোপে মারাত্মকভাবে আহত হন।
খবর পেয়ে সহপাঠীরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাম্বুলেন্সে করে স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়।
সংবাদ সম্মেলনে গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) ছানোয়ার হোসেন জানান, ৬ এপ্রিল হেফাজতে ইসলামের সমাবেশে বুয়েট মসজিদের ঈমাম খাবার বিতরণ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বুয়েট ছাত্রলীগের নেতা দীপসহ ৪/৫ জন নেতাকর্মী ঈমামকে লাঞ্ছিত করে।
ছানোয়ার হোসেন বলেন,‘ঈমামকে এভাবে লাঞ্ছিত করার বিষয়টি মন থেকে মেনে নিতে পারেনি মেজবাহ। এ কারণে সে আরিফের হলে গিয়ে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
দীপের ওপর হামলার ঘটনায় অধ্যাপক হোসেইন আলীর নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে বুয়েট কর্তৃপক্ষ।এ ঘটনার পর চকবাজার থানায় একটি মামলা হয়।
গত ১৮ এপ্রিল দীপের ওপর হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মো. মেজবাহ উদ্দিন মেজবাহকে (২৪) গ্রেপ্তার করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দীপের ওপর হামলার কথা স্বীকার করে মেজবাহ।

হটনিউজ২৪বিডি.কম