কৃষি ঢাকা

পাহাড়ি এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে মাছের চাষ

Picture-01নরসিংদী প্রতিনিধি:নরসিংদীর শিবপুরের পাহাড়ি এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে মাছের চাষ। পাহাড়ি এলাকার পরিত্যক্ত নিচু জমিতে বাধ দিয়ে জলাশয় তৈরি করে মাছ চাষ করে ভাগ্য পরিবর্তন করেছেন অনেক বেকার যুবক। আর মাছের চাষকে ঘিরে ওই এলাকায় গড়ে উঠা মাছের খাদ্য তৈরির একাধিক কারখানায় কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে অনেকের। নরসিংদী টিলা বিশিষ্ট এলাকায় মাছ চাষের কথা কেউ হয়তো কল্পনা-ই করেনি। তবে শিবপুরের বশির আহমেদ সেই কাজটি করে দেখিয়েছেন। পরিত্যক্ত নিচু জমিতে বাধ দিয়ে একটি জলাশয় তৈরি করে মাছের চাষ শুরু করেন তিনি। আর এতে তিনি লাভবান হলে পর্যায়ক্রমে পরিত্যক্ত জমি ভাড়া নিয়ে আরো সাতটি জলাশয় গড়ে তোলেন। পাশাপাশি মাছের খাদ্য চাহিদার কথা ভেবে গড়ে তোলেন মাছের খাদ্য তৈরির কারখানা। বশিরের সফলতা দেখে এখানে দিন দিন বাড়ছে জলাশয় আর মাছ চাষীর সংখ্যা। শুধু শিবপুরের ৯টি ইউনিয়নে পরিত্যক্ত জমিতে বাধ দিয়ে তৈরি হয়েছে চার শতাধিক জলাশয়। এসব জলাশয়ে চাষ করা হচ্ছে তেলাপিয়া, পাঙ্গাস, সরপুটি, কাতলা, কইসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। আর এতে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে অনেক মানুষের।

নরসিংদী জেলা মৎস্য কর্মকর্তা চৌধুরী মোঃ আবুল ফারাহ জানিয়েছেন, পাহাড়ী এলাকার জলাশয় গুলোতে উৎপাদিত মাছ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের চাহিদা মেটাচ্ছে। জেলা মৎস্য বিভাগের পক্ষ থেকে চাষীদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। সরকারী ভাবে প্রয়োজনীয় ঋণ ও প্রশিক্ষণ প্রদান করা হলে এই অঞ্চলে বাড়বে মাছ চাষীর সংখ্যা। বাড়বে উৎপাদনও কমে আসবে বেকারত্বের সংখ্যা এমনটাই মনে করছেন সংশিষ্টরা ।